এসিআই ফান কেক’র আয়োজনে ভাষার জন্য ভালোবাসা

অর্থ ও বাণিজ্য

আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসকে কেন্দ্র করে ফেসবুকে ‘এসিআই ফান কেক ভাষার জন্য ভালোবাসা’নামক ক্যাম্পেইন শুরু করেছে এসিআই লিমিটেড।

ক্যাম্পেইনটি বাংলা ভাষার সঠিক ব্যবহার ও সঠিক শব্দ উচ্চারণ চর্চার একটি ক্ষুদ্র প্রয়াস। ক্যাম্পেইন উপলক্ষ্যে এসিআই ফান কেকের নতুন প্যাকে সংযোজিত শব্দগুলোর সঠিক ব্যবহার ও শব্দের সঠিক উচ্চারণের ভিডিও ফেসবুকে নিজের প্রোফাইলে #ACIFUNCAKE# ভাষার জন্য ভালোবাসা লিখে আপলোড করে ক্রেতারা জিতে নিতে পারেন এসিআই ফান কেকের পক্ষ থেকে আকর্ষণীয় সব উপহার। ক্যাম্পেইনটি আগামী ২০ ফেব্রুয়ারি রাত ১১:৫৯ মিনিট পর্যন্ত সকলের জন্য উন্মুক্ত থাকবে।

দুই ক্যাটাগরিতে সর্বোচ্চ প্যাকেট সংগ্রহকারীদের ২১শে ফেব্রুয়ারি ভাষা দিবসে আয়োজিত ফেসবুক লাইভ প্রোগ্রামে এসিআই-এর উর্ধ্বতন কতৃপক্ষের উপস্থিতিতে বিজয়ী ঘোষণা করা হবে এবং পরবর্তীতে তাদের ঠিকানায় পুরষ্কার প্রেরণ করা হবে। একই সাথে সেই লাইভেই ভাষার মাসে ফান কেক থেকে আয়ের একটি অংশ সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের শিক্ষার কাজে ব্যবহৃত হবে, যেনো ভবিষ্যৎ প্রজন্ম বাংলা ভাষার মর্যাদা এবং চেতনা ধরে রাখতে পারে।

ক্যাম্পেইন সম্পর্কে ফারিয়া ইয়াসমিন (বিজনেস ডিরেক্টর, এসিআই কনজ্যুমার ব্র্যান্ডস) বলেন, এখনকার সময়ের ছেলে-মেয়েরা কথা বলার সময় কেমন সব অদ্ভুত শব্দ ব্যবহার করে, যেমন প্যারা, ক্যাচাল ইত্যাদি। এই শব্দগুলো সময়ের সাথে সাথে কোনো না কোনোভাবে আমাদের দৈনন্দিন ভাষার ব্যবহারে ঢুকে পড়েছে যা শুনতে মোটেও শোভনীয় নয়। বাংলা অনেক সুন্দর একটি ভাষা এবং এর সঠিক ব্যবহার নিশ্চিত করাও খুবই জরুরি। আশা করি আমাদের ‘ভাষার জন্য ভালোবাসা’ ক্যাম্পেইনটি কিছুটা হলেও বাংলা ভাষার সঠিক ব্যবহার সম্পর্কে মানুষকে অবহিত করবে।

ভাষা নিয়ে ক্যাম্পেইন করার কারণ জানতে চাইলে এসিআই ফুডস লিমিটেডের সিনিয়র মার্কেটিং ম্যানেজার এইচ.এম ফজলে রাব্বি জানিয়েছেন, ‘বাংলা ভাষা নিয়ে এমন ক্যাম্পেইন আরও বেশি বেশি আয়োজন করা উচিৎ। কারণ বাংলাদেশিদের মধ্যে ভাষা নিয়ে একধরনের অনীহা কাজ করে। অনেকেই আছে যারা সঠিক উচ্চারণ জানা থাকলেও তা কখনই ব্যবহার করে না। প্যাকের গায়ে থাকা শব্দের সঠিক উচ্চারণ করে ভিডিও করার মাধ্যমে কিছুটা হলেও এই অনীহা থেকে বের হয়ে আসা সম্ভব বলে আমার ধারণা।’

এসিআই ফান কেক আয়োজিত এই ক্যাম্পেইনটি বাংলা ভাষার সঠিক ব্যবহারে দেশবাসীকে উদ্বুদ্ধ করবে এবং পরবর্তী প্রজন্ম ভাষার সঠিক ব্যবহারের গুরুত্ব সম্পর্কে সচেতন হবে এমনটি আশা করছে এসিআই-এর পৃষ্ঠপোষকেরা।