বিশ্বকাপে টানা ১৭ ম্যাচে জয়হীন পাকিস্তানের মেয়েরা

Slider right খেলা

নিউজিল্যান্ডে নারী ওয়ানডে বিশ্বকাপে নিজেদের তৃতীয় ম্যাচেও হেরেছে পাকিস্তানের মেয়েরা। ভারত-অস্ট্রেলিয়ার পর দক্ষিণ আফ্রিকার কাছেও হেরেছে পাকিস্তান। নারীদের ওয়ানডে বিশ্বকাপে এ নিয়ে টানা ১৭ ম্যাচে জয়হীন তারা।

শুক্রবার (১১ মার্চ) মাউন্ট মঙ্গানুইতে টস জিতে দক্ষিণ আফ্রিকাকে ব্যাটিংয়ে পাঠায় পাকিস্তান। বোলিংয়ে নেমে শুরুতেই প্রোটিয়া ওপেনার লেজলি লিকে প্যাভিলিয়নে ফেরত পাঠায় পাকিস্তানি ফাতিমা সানা। পরপই প্যাভিলিয়নে ফেরেন আরেক প্রোটিয়া ব্যাটার তাজমিন ব্রিটস।

তবে শুরুতেই পাওয়া সাফল্য ধরে রাখতে পারেনি পাকিস্তান। তৃতীয় উইকেট জুটিতে লাওরা উলভার্ট এবং অধিনায়ক সুনে লুস গড়ে তোলেন ৮৯ রানের জুটি। তাদের এই জুটিতেই বড় সংগ্রহের আভাস পায় দক্ষিণ আফ্রিকা। দলীয় ১১০ রানের মাথায় অধিনায়ক লাওয়া উলভার্ট প্যাভিলিয়নে ফিরলে ভাঙে এই জুটি।

তবে জুটি ভাঙলেও দলের বিপদ একপ্রান্ত আগলে উইকেটে টিকে ছিলেন অধিনায়ক সুনে লুসে। অধিনায়কের হাফ সেঞ্চুরির পর কোলে ট্রাইওন এবং ত্রিশা ছেট্টির ব্যাটে ভর করে ২২৩ রানের সংগ্রহ পায় দক্ষিণ আফ্রিকা।

প্রোটিয়া মেয়েদের পক্ষে সর্বোচ্চ ৭৫ রান করেন ওপেনার লাওরা উলভার্ট। আর পাকিস্তানের হয়ে তিনটি করে উইকেট শিকার করেন ফাতিমা সানা এবং ঘুলাম ফাতিমা।

২২৪ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে দলীয় ২৬ রানেই দুই উইকেট হারিয়ে বসে পাকিস্তানের মেয়েরা। তৃতীয় উইকেট জুটিতে ওপেনার নাহিদা খান এবং ওমাইমা সোহেলের ৬৯ রানের জুটিতে জয়ের স্বপ্ন দেখতে শুরু করে পাকিস্তান।

তবে ব্যক্তিগত ৪০ রানে নাহিদা ফিরে গেলে ভাঙে এই জুটি। তখন পাকিস্তানের হাল ধরেন ওমাইমা সোহেল এবং নিদা দার। তাদের ব্যাটে সঠিক পথেই ছিল পাকিস্তানের মেয়েরা। তবে ওমাইমা সোহেল প্যাভিলিয়নে ফিরে গেলে আর আগাতে পারেনি পাকিস্তান।

শেষ পর্যন্ত ১ বল বাকি থাকতেই ৬ রানের হার নিয়ে মাঠ ছাড়তে হয় তাদেরকে। দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে পেসার শবনিম ইসমাইল তিনটি উইকেট শিকার করেন।

দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ওয়ানডে বিশ্বকাপের ইতিহাসে নিজেদের ২৬তম ম্যাচ খেলতে নেমেছিল পাকিস্তানের মেয়েরা। দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে এ হার ছিল পাকিস্তানের বিশ্বকাপ ইতিহাসের টানা ১৭তম হার। সর্বশেষ ২০০৯ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে জিতেছিল পাকিস্তানের মেয়েরা। অবশ্য বিশ্বকাপ ইতিহাসে ২৬ ম্যাচের ২৪ টিতেই হারের মুখ দেখেছে পাকিস্তান।