দল-বদলে বার্সেলোনার খরচসীমা ‘১৪৪ মিলিয়ন’ ইউরো

খেলা

আর্থিক সমস্যা যেন বার্সেলোনার গলার কাটা হয়ে দাঁড়িয়েছে। নিয়মের বেড়াজালে পড়ে সর্বশেষ দল-বদল মৌসুমে লিওনেল মেসিকে ছাড়তে বাধ্য হয়েছে কাতালান ক্লাবটি। এতেও সমস্যার সমাধান হয়নি, পরবর্তী ২০২২-২৩ মৌসুমের শুরুতেও দল-বদলে বেশ বেগ পোহাতে হবে দলটিকে। এ সময় কাতালান ক্লাবটি মাত্র ১৪৪ মিলিয়ন ইউরো খরচ করতে পারবে নতুন ফুটবলার কিনতে।

সোমবার (১৪ মার্চ) ক্লাবগুলোকে কত অর্থ খরচ করতে পারবে সে তালিকা প্রকাশ করে স্প্যানিশ লিগ কর্তৃপক্ষ।

স্প্যানিশ ক্লাবগুলোর খরচের সীমা নির্ধারিত করে দিয়েছে লিগ কর্তৃপক্ষ। সেই নিয়ম অনুযায়ী প্রতি মৌসুমে ক্লাবগুলো নতুন খেলোয়াড় কিনতে তাদের আয়ের ৭০ শতাংশ অর্থ খরচ করতে পারবে। এই নিয়মের বেড়াজালে পড়েই নতুন ২০২২-২৩ মৌসুমের শুরুতে দল-বদলের বাজারে বার্সেলোনার জন্য বরাদ্দ মাত্র ১৪৪ মিলিয়ন ইউরো।

স্প্যানিশ ক্লাবগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি অর্থ খরচ করতে পারে রিয়াল মাদ্রিদ। তারা দল-বদলের বাজারে খরচ করতে পারবে ৭৩৯ মিলিয়ন ইউরো। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ২০০ মিলিয়ন ইউরো খরচ করতে পারবে সেভিয়া।

স্প্যানিশ লিগ কর্তৃপক্ষ সাধারণত ক্লাবগুলোর আয়-ব্যয় এবং ঋণের পরিমাণ বিবেচনা করে দলগুলোর অর্থ খরচের সীমা তৈরি করে। বর্তমানে বার্সেলোনার ঋণের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে প্রায় ১.৩ বিলিয়ন ইউরো। আর এ কারণেই কমেছে তাদের অর্থ ব্যয়ের পরিমাণ।

সর্বশেষ ২০২১-২২ মৌসুম শুরুর আগে ক্লাবগুলোকে প্রাইভেট ইক্যুইটি ফার্ম সিভিসির সাথে চুক্তি করতে বলেছিল স্প্যানিশ লিগ কর্তৃপক্ষ। এই চুক্তি করলে ক্লাবগুলো দীর্ঘ সময়ের জন্য ব্রডকাস্টিং রাইট হারিয়ে ফেলতো বলে ধারণা করা হয়। এই চুক্তিতে সম্মত হলে, আর্থিক সমস্যা মুক্ত হতে পারতো বার্সেলোনা। তবে তা না করায় আর্থিক সমস্যা নিয়েই এগিয়ে চলছে ক্লাবটি।