‘ইউক্রেনে ৮১৬ বেসামরিক নাগরিক নিহত’

Slider right সারাবিশ্ব

তিন সপ্তাহের বেশি সময় থেকে ইউক্রেনে রাশিয়ার আগ্রাসন চলছে। রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট পুতিন গত বৃহস্পতিবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) সামরিক অভিযান ঘোষণার কয়েক মিনিট পরেই ইউক্রেনে বোমা ও ক্ষেপণাস্ত্র হামলা শুরু করে রুশ সেনারা। এরপর থেকে ইউক্রেন ও রাশিয়ার মধ্যে যুদ্ধ চলছে। ইউক্রেনে চলমান রুশ আগ্রাসনের সর্বত্মক হামালার মুখে জীবন বাঁচাতে ইউক্রেন ছেড়েছেন দেশটির লাখ লাখ নাগরিক। পাশ্ববর্তী দেশ ছাড়াও ইউরোপের বিভিন্ন দেশে আশ্রয় নিচ্ছেন ইউক্রেনীয়রা। তবে সম্প্রতি চলমান জুদ্ধে ২৪ ফেব্রুয়ারি যুদ্ধ শুরুর পর ১৭ মার্চ পর্যন্ত কমপক্ষে ৮১৬ বেসামরিক নাগরিক নিহত হয়েছে। এছাড়া একই সময়ে ১ হাজার ৩৩৩ জন আহত হয়েছে বলে জানিয়েছে জাতিসংঘ।

জাতিসংঘের তথ্যমতে, যুদ্ধে বেশিরভাগ হতাহতের ঘটনা ঘটেছে বিস্ফোরক অস্ত্র যেমন ভারী কামান এবং মাল্টিপল-লঞ্চ রকেট সিস্টেম থেকে ছোড়া গোলা এবং ক্ষেপণাস্ত্র ও বিমান হামলায়। খবর বিবিসির। তবে প্রকৃত তথ্য এর চেয়েও বেশি হতে পারে বলে জানিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। কেননা মারিওপোলসহ সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত এলাকার কিছু অংশ থেকে তথ্য সংগ্রহ করা সম্ভব হয়নি বলে জানিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।

এদিকে ইউক্রেনের জরুরি সেবা বিভাগ জানিয়েছে, বৃহস্পতিবার দেশটির খারকিভ শহরের বিভিন্ন স্থাপনা লক্ষ্য করে হামলা চালায় রাশিয়ার সামরিক বাহিনী। এতে করে শহরের একটি শপিং সেন্টারে আগুন ধরে যায়। আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে দমকলকর্মীরা কাজ শুরু করলে সেখানে আবারও হামলার ঘটনা ঘটে।