রুশ হামলায় কিয়েভে নিহত ২২৮, দাবি শহর প্রশাসনের

Slider right সারাবিশ্ব

ইউক্রেনে রুশ আগ্রাসনের পরে এ পর্যন্ত কিয়েভ শহরে ২৮৮ জন নিহত হয়েছে বলে জানিয়েছে কিয়েভ শহরের কর্তৃপক্ষ। যার মধ্যে চার জন শিশুও রয়েছে। শনিবার এ তথ্য জানান শহরটির কর্তৃপক্ষ। কিয়েভ শহর প্রশাসন এক বিবৃতিতে জানিয়েছেন। এতে আরও ৯১২ জন আহত হয়েছেন। খবর রয়টার্স। কিন্তু কিয়েভ শহর প্রশাসনের এই দাবি বার্তা সংস্থা রয়টার্স স্বাধীনভাবে নিশ্চিত করতে পারেনি।

উল্লেখ্য, পশ্চিমা দেশগুলোর সামরিক জোট ন্যাটোর সদস্যপদের জন্য কয়েক বছর আগে আবেদন করে ইউক্রেন। মূলত, এ নিয়েই রাশিয়া ও ইউক্রেনের মধ্যে দ্বন্দ্ব শুরু হয়। এর মধ্যে ন্যাটো ইউক্রেনকে পূর্ণ সদস্যপদ না দিলেও সহযোগী দেশ হিসেবে মনোনীত করায় দ্বন্দ্বের তীব্রতা আরও বাড়ে। ন্যাটোর সদস্যপদের জন্য আবেদন প্রত্যাহারে ইউক্রেনের ওপর চাপ প্রয়োগ করতে যুদ্ধ শুরুর দুই মাস আগ থেকেই ইউক্রেন সীমান্তে প্রায় দুই লাখ সেনা মোতায়েন রাখে মস্কো। কিন্তু এই কৌশল কোনো কাজে না আসায় গত ২২ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলীয় দুই ভূখণ্ড দনেতস্ক ও লুহানস্ককে স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে স্বীকৃতি দেয় রাশিয়া। ঠিক তার দু’দিন পর ২৪ তারিখ ইউক্রেনে সামরিক অভিযান শুরুর নির্দেশ দেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। এরপর রাশিয়ার সশস্ত্র বাহিনী স্থল, আকাশ ও সমুদ্রপথে ইউক্রেনে এই হামলা শুরু করে।