আলোচনার জন্য উপযুক্ত স্থান জেরুজালেম: জেলেনস্কি

Slider right সারাবিশ্ব

ইউক্রেন ও রাশিয়ার মধ্যে চলমান যুদ্ধ থামাতে ইসরায়েল মধ্যস্থতা করার চেষ্টা করছে। এ পরিস্থিতি দুই দেশের মধ্যে যে শান্তি আলোচনা চলছে, তার সম্ভাব্য কেন্দ্র হতে পারে ইসরায়েল। ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি এ তথ্য জানিয়েছে।

স্থানীয় সময় রোববার ইউক্রেনের জনগণের উদ্দেশে দেয়া এক ভিডিও বক্তব্যে জেলেনস্কি বলেন, ‘ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী (নেফতালি) বেনেট আলোচনা টেবিলে বসাতে পথ বের করার চেষ্টা করছেন।’

তিনি জানান, আগে বা পরে- যে কোনো সময় যাতে রাশিয়ার সঙ্গে আলোচনায় তারা বসতে পারেন, সেই চেষ্টাই করছেন বেনেট। সম্ভব্য সে আলোচনা জেরুজালেমে হতে পারে।

জেলেনস্কি বলেন, ‘তার এ চেষ্টার জন্য আমরা কৃতজ্ঞ।’ তিনি বলেন, ‘শান্তির সন্ধান পেতে (যদি সম্ভব হয়) এটাই (জেরুজালেম) উপযুক্ত স্থান।’

এর আগে ইসরায়েলের পার্লামেন্টে ভিডিও লিংকের মাধ্যমে বক্তব্য রাখেন জেলেনস্কি।

গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে সামরিক আগ্রাসন শুরু করে রাশিয়া। দেশটির রাজধানী কিয়েভসহ বিভিন্ন শহরে গোলা ও ক্ষেপণাস্ত্র হামলা শুরু করে রুশ বাহিনী।

যুদ্ধে দুই পক্ষেরই ব্যাপক প্রাণহানীর খবর পাওয়া যাচ্ছে। জাতিসংঘ বলছে, যুদ্ধের কারণে ইতোমধ্যে ইউক্রেন ছেড়ে অন্য দেশে আশ্রয় নিয়েছেন এক কোটিরও বেশি মানুষ।

সূত্র জানায়, রাশিয়ার সীমান্তবর্তী ইউক্রেনের শহরগুলো ঘিরে রেখেছে রুশ সামরিক বাহিনী; হামলা চলছে ইউক্রেনের দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর খারকিভেও।

ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভের পাশে অবস্থান করছে রুশ বাহিনীর ৪০ মাইল দীর্ঘ একটি বহর। তারা যে কোনো সময় শহরটিতে হামলা চালাতে পারে।

রাশিয়ার গোলা ও ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় খারকিভ, মারিওপল শহরে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি ও প্রাণহানীর খবর পাওয়া যাচ্ছে।