দাবী পূরণ না হওয়ায় নীলক্ষেতে আমরণ অনশণ সাত কলেজ শিক্ষার্থীদের

Slider শিক্ষা

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অধিভুক্ত সাত কলেজের অনার্স (২০১৭-১৮, ১৮-১৯, ১৯-২০) সেশনের শিক্ষার্থীরা ৩ দফা দাবীতে নীলক্ষেত মোড়ে আমরণ অনশণ ও অবস্থান কর্মসূচি পালন করছে। মংগলবার ২২ ই মার্চ বেলা ১২ টায় সাত কলেজ শিক্ষার্থীরা নীলক্ষেত মোড়ে অবস্থান করেন। শিক্ষার্থীদের ৩ দফা দাবী সমূহ-

১। করোনা সংক্রমনের কারণে CGPA শর্ত সিথিল করে ১ম, ২য় এবং ৩য় বর্ষের (১৯-২০, ১৮-১৯, ১৭-১৮) প্রকাশিত সকল বিভাগের অকৃতকার্য শিক্ষার্থীদের পরবর্তী বর্ষে প্রমোশন দিতে হবে।

২। দর্শন বিভাগের প্রশ্নের মানবন্টন পরিবর্তন করতে হবে, ১০০ মার্কের পরিবর্তে ৮০ মার্কের পরিক্ষা নিতে হবে এবং ২০ মার্ক ইনকোর্স এর মাধ্যমে যোগ করতে হবে

৩। গণহারে ফেইল করার কারণ ও প্রতিরোধে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করতে হবে এবং এর স্থায়ী সমাধান করতে হবে।

ঢাকা কলেজের ইংরেজি বিভাগের শিক্ষার্থী রবিন বলেন, আমরা করোনাকালীন সময়ে মাত্র ২ মাস ক্লাস করার সময় পেয়েছি ৪ ঘন্টার পরীক্ষা আমরা ২ ঘন্টায় দিয়েছি প্রশ্নের উত্তর জানা থাকলেও সময়ের অভাবে আমরা উত্তর দিতে পারিনি। ফলে গণহারে ফেল আসে। আমরা এর আগে কর্মসূচি পালন করেছি ও সাত কলেজের অধ্যক্ষ ও কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি অবহিত করেছি কোনো ফল পাইনি।
মাসরু

বেগম বদরুন্নেসা মহিলা কলেজের বাংলা বিভাগের শিক্ষার্থী মাছুমা আক্তার মুন বলেন, করোনার জন্য আমাদের দীর্ঘ সেশনজটে পড়েছি এবং যে পরীক্ষা ২০২০ সালে দেওয়ার কথা আমরা তা ২০২১ এর শেষে এসে দিতে পেরেছি। চার ঘন্টার পরীক্ষা ২ ঘন্টায় দেওয়ার ফলে ফলাফল বিপর্যয় ঘটে এখন আমাদের পরবর্তী বর্ষে প্রোমোশন না দিলে পড়াশুনা বাদ দেওয়া ছাড়া উপায় নেই। আমরা সাত কলেজ কর্তৃপক্ষের সাথে কথা বলেছি তারা আমাদের কোনো সমাধান না দেওয়ার ফলে আমরা আবারও আন্দোলনে নামতে বাধ্য হয়েছি।