ইউক্রেনে নয়টি মানবিক করিডোর খুলছে

Slider সারাবিশ্ব

যুদ্ধের মধ্যে ইউক্রেনের বিভিন্ন শহরে আটকা বেসামরিক লোকজনকে অন্যত্র সরে যাওয়ার সুযোগ করে দিতে নয়টি মানবিক করিডোর খুলে দেয়া হচ্ছে। এ বিষয়ে ইউক্রেন ও রাশিয়া- উভয়পক্ষই সম্মত হয়েছে।

ইউক্রেনের ডেপুটি প্রধানমন্ত্রী আইরিনা ভেরেশচুকের উদ্ধৃত্তি দিয়ে বুধবার আল জাজিরা এ খবর জানিয়েছে।

আইরিনা ভেরেশচুক এক ফেসবুক পোস্টে জানান, ইউক্রেনের দোনেতস্ক, জারপোরিঝঝিয়া, কিয়েভ ও লোহানস্ক শহরে এসব মানবিক করিডোর খুলে দেয়া হবে।

ইউক্রেনের মারিউপোল শহরে রাশিয়ার বোমা, ক্ষেপণাস্ত্র হামলা ও গোলাগুলির মধ্যে আটকা পড়ে আছেন কয়েক লাখ মানুষ। শহরটিতে মানবিক করিডোরের মাধ্যমে লোকজনকে অন্যত্র সরিয়ে নেয়ার বিষয়ে কোনো উদ্যোগ আসেনি।

ওই শহরে মানবেতর জীবনযাপন করছেন বেসামরিক লোকজন। পানি, বিদ্যুৎ ও গ্যাসের চরম সংকটে তারা ভোগান্তিতে রয়েছেন।

গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে সামরিক আগ্রাসন শুরু করে রাশিয়া। দেশটির রাজধানী কিয়েভসহ বিভিন্ন শহরে গোলা ও ক্ষেপণাস্ত্র হামলা শুরু করে রুশ বাহিনী।

যুদ্ধে দুই পক্ষেরই ব্যাপক প্রাণহানির খবর পাওয়া যাচ্ছে। জাতিসংঘ বলছে, যুদ্ধের কারণে ইতোমধ্যে ইউক্রেন ছেড়ে অন্য দেশে আশ্রয় নিয়েছেন ৩৫ লাখেরও বেশি মানুষ।

সূত্র জানায়, রাশিয়ার সীমান্তবর্তী ইউক্রেনের শহরগুলো ঘিরে রেখেছে রুশ সামরিক বাহিনী; হামলা চলছে ইউক্রেনের দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর খারকিভেও।

ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভের পাশে অবস্থান করছে রুশ বাহিনীর ৪০ মাইল দীর্ঘ একটি বহর। তারা যে কোনো সময় শহরটিতে হামলা চালাতে পারে।

রাশিয়ার গোলা ও ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় খারকিভ, মারিওপল শহরে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি ও প্রাণহানির খবর পাওয়া যাচ্ছে।