গ্রাহকের স্বাধীনতা খর্ব করছে টফি অ্যাপ

Slider right তথ্য-প্রযুক্তি

ডিজিটাল এন্টারটেইনমেন্ট অ্যাপ টফি অ্যাপে বিড়ম্বনার শিকার হচ্ছেন ব্যবহারকারীরা। টফি-তে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ-আইপিএল-এর ২০২২ সিজনের ম্যাচগুলো সরাসরি দেখা যাবে বলা হলেও বাংলালিংক সিম ব্যবহারকারি ছাড়া অন্য অপারেটরের সিম দিয়ে দেখা যাচ্ছে না।

ব্যবহারকারীদের শর্তের বেড়াজালে নাস্তানাবুদ হচ্ছেন বলে অভিযোগ উঠেছে টফির বিরুদ্ধে। ডিজিটাল এন্টারটেইনমেন্ট অ্যাপ টফি অ্যাপে বিড়ম্বনার শিকার হচ্ছেন ব্যবহারকারীরা।

সম্প্রতি টফির পক্ষ থেকে সংবাদ মাধ্যমে পাঠানো প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ম্যাচগুলো সরাসরি উপভোগ করা যাবে অ্যান্ড্রয়েড ও আইওএস মোবাইল ডিভাইস ও অ্যান্ড্রয়েড টিভিতে টফি অ্যাপে। তবে তার জন্য নির্দিষ্ট একটি অপারেটরের গ্রাহক হতে হবে এমন কথা জানানো হয়নি। বাংলালিংক ছাড়া অন্য অপারেটরের ব্যবহারকারীদের জন্য যে এ সেবা মিলবে না সে বিষয়েও সরাসরি কিছু উল্লেখ নেই বিজ্ঞপ্তিতে।

এমনকি অ্যান্ড্রয়েড এবং আইওএস ডিভাইসে অ্যাপটি ইন্সটল করার সময়ও এমন কোন শর্তের কথা গ্রাহককে জানানো হয়নি বরং টফি অ্যাপটি খুললেই পপআপ ভেসে আসে ‘ওয়াচ ফ্রি অন এনি নেটওয়ার্কের’ অর্থাৎ যে কোনো নেটওয়াকের্র জন্য এটি ফ্রি সেবা।

ভুক্তভুগী এক ব্যবহারকারী বলেন, আমি টফির বিজ্ঞাপন দেখে বাংলাদেশ বনাম সাউথ আফ্রিকার ম্যাচ দেখার জন্য এই অ্যাপটি ইন্সটল করি, ইনস্টল করার পর আমি বুঝতে পারি এটা আসলে টফির টোপ ছিল। তারা এখন আমাকে বলছে আমি বাংলালিংক সিম ব্যবহার করলে তবেই খেলা দেখতে পারবো কিন্তু অ্যাপটি ইন্সটল করার সময় টার্মস অ্যান্ড কন্ডিশনে এমন কিছু দেখিনি। তাহলে কি টফি বাধ্য করছে নির্দিষ্ট ওই অপারেটরের গ্রাহক হতে? দেশ যখন স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী পেরিয়ে ৫১ বছরে আর ডিজিটাল বাংলাদেশ এখন বাস্তবতা, এ সময় টফি কি গ্রাহক স্বাধীনতায় খর্ব করছে না? বলছিলেন ক্ষুব্ধ এ ব্যবহারকারী।

যে যেমন খুশি অপারেটরের সেবা গ্রহণ করবে সে লক্ষ্যে ইতোমধ্যেই দেশে চালু হয়েছে এমএনপি সার্ভিস। অথচ টফি সাধারণ ব্যবহারকারীদের বাধ্য করছে একটি নির্দিষ্ট অপারেটরের গ্রাহক হতে।