ইউক্রেনের হামলায় রুশ যুদ্ধজাহাজের ‘ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি’

Slider সারাবিশ্ব

ইউক্রেনের সামরিক বাহিনীর হামলায় কৃষ্ণসাগরে রাশিয়ার পতাকাবাহী একটি যুদ্ধজাহাজ ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ওই যুদ্ধজাহাজে বিস্ফোরক আঘাত হানে। এ ঘটনায় দুই পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা আরও বেড়েছে। রাশিয়া বলেছে, তারা কিয়েভে ইউক্রেনের কমান্ড সেন্টারে হামলা চালাবে।

রাশিয়ার রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যমের বরাত দিয়ে এনডিটিভি এ খবর জানিয়েছে।

রাশিয়া ও ইউক্রেনের মধ্যে যুদ্ধ সপ্তম সপ্তাহে পৌঁছেছে। চলতি সপ্তাহে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ইউক্রেনকে আরও সহায়তা দেয়ার ঘোষণা দিয়েছেন।

বাইডেন প্রশাসন জানিয়েছে, সামরিক সহায়তার অংশ হিসেবে ইউক্রেনকে আরও ৮০০ মিলিয়ন ডলার দেয়া হবে। এ সহায়তার মধ্যে কয়েকটি হেলিকপ্টারও রয়েছে।

আন্তর্জাতিক প্রসিকিউটররা বলছেন, যুদ্ধ ইউক্রেনকে একটি ‘অপরাধের কেন্দ্রে পরিণত করেছে’। তারা বলছেন, দায়ী ব্যক্তিরা একদিন বিচারের মুখোমুখি হতে পারেন।

রাশিয়ার যুদ্ধজাহাজ মস্কভা মিসাইল ক্রুজারের ক্ষতি ‘আগুনের কারণে’ গোলাবারুদ বিস্ফোরণের জন্য হয়েছে। রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় বলছে, আগুনের কারণ অনুসন্ধান করা হচ্ছে।

ওডেসার গভর্নর বলছেন, ইউক্রেনীয় বাহিনী ক্ষেপণাস্ত্র হামলার মাধ্যমে জাহাজটিকে আঘাত করেছে। অন্যদিকে প্রেসিডেন্টের উপদেষ্টা ওলেক্সি আরেস্টোভিচ বলেছেন, ‘আমরা বুঝতে পারছি না কি ঘটেছে।’

রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যমকে জানিয়েছে, ‘জাহাজটি গুরুতরভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে’।

মস্কোর কৃষ্ণসাগরে থাকা বহরগুলো ইউক্রেনের মারিউপোল এবং ওডেসার উপকূল অবরোধ করছে; এর জাহাজগুলো উপকূলীয় শহরগুলোতে বোমাবর্ষণ করতে ব্যবহার করা হয়েছে।