আমি কারো কথায় কান দেই না: দিঘী

Slider right বিনোদন

শিশুশিল্পী হিসেবে বড় পর্দায় পা রাখেন অভিনেত্রী প্রার্থনা ফারদিন দীঘি। বেশ কিছু সিনেমায় অভিনয় করে প্রশংসা কুড়িয়েছেন তিনি। শিশুশিল্পী হিসেবে চলচ্চিত্রে অভিনয় করে তিনবার অর্জন করেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার। এখনো দর্শকদের চোখে ভাসে সেই ছোট্ট দীঘির অভিনয় আর কানে বাজে তার মিষ্টি সংলাপ। দীঘি এখন আর শিশুশিল্পী নেই, দীর্ঘ বিরতি কাটিয়ে নায়িকা হিসেবে চলচ্চিত্রে নাম লেখিয়েছেন।

আজ পহেলা বৈশাখ, বাংলা ১৪২৯। ১৪২৮ সনকে বিদায় জানিয়ে বাংলা বর্ষপঞ্জিতে যুক্ত হলো নতুন বছর। পরপর দুই বছর করোনা মহামারির কারণে বর্ষবরণ অনুষ্ঠান সীমিত কিংবা ঘরোয়া পরিবেশে হলেও এবার নানান আয়োজনের মধ্য দিয়ে বাঙালি বরণ করছে নতুন বছরকে। পিছিয়ে নেই শোবিজ তারকারাও। বাংলা নতুন বছরকে বরণ করছেন নানা ভাবে তাঁরা।

সবাইকে বাংলা নতুন বছরের শুভেচ্ছা জানিয়ে দিঘী বলেন, দুই বছর করোনার জন্য আমরা তেমন ভাবে বাংলা নববর্ষ পালন করতে পারিনি। এবার সব স্বাভাবিক হলেও রোজায় নববর্ষ পড়েছে। যার কারণে ঘরে বসেই উদযাপন করছি নববর্ষ। বাসায় নিজের হাতে রান্না করছি। এমনিতে আমি প্রতিবার বাবার সাথে সকালেই বের হই বাইরে। কিন্তু এবার আর বাইরে যাচ্ছিনা। বাসাতেই ঘরোয়া ভাবে পালন করছি।

সম্প্রতি টিপ ও হিজাব নিয়ে বেশ কিছু বিতর্ক উঠেছে। বিষয়টি নিয়ে দিঘী বলেন, আসলে এসব কিছু একান্তই ব্যক্তিগত ব্যাপার। আমার যা ভালো লাগে আমি সেটাই করি। আমি কারো কথায় কান দেই না। আমি কখনো কাউকে নিয়ে কিছু বলি না পাশাপাশি অন্যকে নিয়ে বলা পছন্দও করি না। প্রতিটি মানুষের স্বাধীন ভাবে বেঁচে থাকার অধিকার আছে। যে যা করে খুশি থাকে, তাঁকে সেই ভালো থাকার স্বাধীনতা দেয়া উচিত।

উল্লেখ্য, দিঘী অভিনীত জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে নিয়ে নির্মিত বায়োপিকটি মুক্তির অপেক্ষায় আছে। ছবিটিতে বঙ্গবন্ধুর স্ত্রী ফজিলাতুন্নেছা মুজিব ওরফে ‘রেনু’র কিশোরীবেলার চরিত্রে দেখা যাবে তাকে।