ইইউ-এর জ্বালানি তেল নিষেধাজ্ঞা প্রস্তাব নিয়ে যা বললেন পুতিন

Slider সারাবিশ্ব

ইউক্রেনে সামরিক বাহিনীর আগ্রাসনের পর থেকে নানা নিষেধাজ্ঞা দিয়ে আসছিলো ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ)।

সম্প্রতি রাশিয়ার জ্বালানি তেলসহ বিভিন্ন ধরনের তেলের ওপর নিষেধাজ্ঞা দেয়ার প্রস্তাব দিয়েছে জোটটি।

এবার ইইউ-এর এ প্রস্তাবিত তেল নিষেধাজ্ঞা নিয়ে মুখ খুলেছেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। মঙ্গলবার রাশিয়ার তেল ইন্ডাস্ট্রির প্রধান ও সরকারি কর্মকর্তাদের সঙ্গে এ নিয়ে কথা বলেন রুশ প্রেসিডেন্ট।

তেল নিষেধাজ্ঞা নিয়ে ইউরোপের দেশগুলোর উদ্দেশে পুতিন বলেন, ইউরোপের দেশগুলো তেল ও গ্যাসের ওপর নতুন নিষেধাজ্ঞা দেয়ার চেষ্টা করেই যাচ্ছে। এসব কিছু মুদ্রাস্ফীতির দিকে নিয়ে যাচ্ছে। কিন্তু নিজেদের ভুল স্বীকার করার বদলে, তারা অন্য কারও ঘাড়ে দোষ চাপানোর জন্য খুঁজছে।

পুতিন জানান, ইউরোপের দেশগুলো স্বীকার করেছে তারা রাশিয়ার জ্বালানি ছাড়া চলতে পারবে না এবং এখনই রাশিয়ার জ্বালানির ওপর নিষেধাজ্ঞা দিতে পারবে না।

এ ব্যাপারে পুতিন বলেন, ইউরোপিয়ানরা এখন মেনে নিয়েছে তারা রাশিয়ার জ্বালানিকে পুরোপুরি বাদ দিতে পারবে না। আর এটি নিশ্চিত যে কিছু নির্দিষ্ট দেশে রাশিয়ার হাইড্রোকার্বনের পরিমাণ বিশেষ করে বেশি।

এ সময় পুতিন হুঁশিয়ারি বলেন, একটি লম্বা সময়ের আগে তারা রাশিয়ার জ্বালানি বাদ দিতে পারবে না। রাশিয়ার তেলের ওপর নিষেধাজ্ঞার কথা বলাতেই বিশ্বজুড়ে এখন তেলের দাম বৃদ্ধি পেয়েছে। এসব কারণে ইউরোপিয়ানদের সবচেয়ে বেশি দামে জ্বালানি কিনতে হবে।
সূত্র: সিএনএন