সীমান্তে শূন্য রেখা থেকে বাংলাদেশীকে ধরে নিয়ে গেছে বিএসএফ

সারাবাংলা

মো. মনিরুজ্জামান, (কুড়িগ্রাম) ভূরুঙ্গামারী সংবাদদাতা: কুড়িগ্রামের ভূরুঙ্গামারী উপজেলার মইদাম সীমান্তের শূন্য রেখা থেকে ধান কিনে ফেরার পথে এক বাংলাদেশীকে ধরে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ উঠেছে ভারতীয় সীমান্ত রক্ষী বাহিনীর (বিএসএফ) বিরুদ্ধে।

শনিবার (০৪ জুন) বিকালে উপজেলার পাথরডুবি ইউনিয়নের মইদাম সীমান্তের জিরো পয়েন্ট থেকে কামাল হোসেনকে ধরে নিয়ে যায় বিএসএফ। আটক কামাল হোসেন উপজেলার পাথরডুবি ইউনিয়নের দক্ষিণ বাঁশজানি গ্রামের আবুল হোসেনের ছেলে। তিনি ওই সীমান্তের শূণ্য রেখার নিকট বাংলাদেশ অভ্যন্তরে অবস্থিত একটি বাড়ী থেকে ধান কিনে বস্তায় ভরে শূণ্য রেখা দিয়ে আসার সময় ভারতের দিঘলটারী বিএসএফের একটি টহল দল তাকে আটক করে। বর্তমানে কামাল বিএসএফের হেফাজতে রয়েছে।

বিজিবি ও স্থানীয় সূত্রে জানাযায়, উপজেলার পাথরডুবি ইউনিয়নের মইদাম বিওপির আন্তর্জাতিক সিমানা পিলার ৯৭৭ এর ৭ সাব পিলারের শূণ্য রেখা থেকে ভারতের পশ্চিমবঙ্গ কোচবিহার জেলার দিনহাটা থানার ১২৯ বিএসএফ দিঘলটারী ক্যাম্পের সদস্যরা কামাল হোসেন নামে এক বাংলাদেশীকে ধরে নিয়ে যায়।

বিজিবি মইদাম বিওপি ক্যাম্পের একটি সূত্র ঘটনার সত্যতা নিশ্চিৎ করেছে। সূত্রটি আরো জানায়, বিএসএফ’র হেফাজতে থাকা বাংলাদেশীকে ফেরত আনার জন্য বিজিবির তরফ থেকে বিএসএফকে বার্তা পাঠানো হয়েছে। তাকে ফেরত আনার চেষ্টা চলছে।

এ বিষয়ে কুড়িগ্রাম-২২ বিজিবি’র অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল আব্দুল মোস্তাকিমকে একাধিক বার ফোন করা হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি। ফলে তার মন্তব্য পাওয়া যায়নি।