‘তুরস্ককে বশে আনতে’ গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ নিয়েছে সুইডেন

সারাবিশ্ব

বিশ্বের বৃহত্তম সামরিক জোট ন্যাটোতে যোগ দিতে চায় সুইডেন ও ফিনল্যান্ড। তবে তাদের ন্যাটোতে যোগ দেওয়ার বিষয়ে বাধ সেধেছে তুরস্ক। তুরস্ক দাবি করেছে, সুইডেন ও ফিনল্যান্ড জঙ্গিবাদে মদদ দেয়। তারা পিকেকে ও ওয়াইপিজির মতো জঙ্গী সংগঠনগুলোকে সরাসরি সহায়তা করে। যারা তুরস্কের বিরুদ্ধে বিচ্ছিন্নতাবাদী যুদ্ধ করে।

ফলে ন্যাটো-সুইডেনকে ন্যাটোতে যোগ দেওয়ার ব্যপারে সায় না দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে তুরস্ক।

তুরস্ক কিছু শর্ত দিয়ে জানায়, যদি ন্যাটো-ফিনল্যান্ড এ শর্তগুলো মানে তাহলেই তারা শুধুমাত্র সায় দেবে।

শর্তগুলো হলো: জঙ্গিবাদে মদদ দেওয়া বন্ধ করতে হবে, তুরস্ক যাদের চায় সেই সব জঙ্গীদের তাদের হাতে তুলে দিতে হবে এবং তুরস্কের ওপর অস্ত্র নিষেধাজ্ঞা তুলে দিতে হবে।

আর তুরস্কের এসব শর্ত পূরণের ক্ষেত্রে সুইডেন গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ নিয়েছে বলে জানিয়েছেন ন্যাটোর সেক্রেটারি জেনারেল জেনস স্টলটেনবার্গ।

সোমবার সুইডেনের প্রধানমন্ত্রী ম্যাগডালেনা অ্যান্ডারসনের সঙ্গে সাক্ষাৎ শেষে যৌথ সংবাদ সম্মেলনে এমন তথ্য জানান স্টলটেনবার্গ।

এ ব্যাপারে ন্যাটো সেক্রেটারি জেনারেল বলেন, আমি স্বাগতম জানাই যে সুইডেন ইতিমধ্যেই জঙ্গি-বিরোধী আইন পরিবর্তন করা শুরু করেছে এবং সুইডেন নিশ্চিত করবে ভবিষ্যতে অস্ত্র রপ্তানি ন্যাটোর আইনি কাঠামোর মধ্যে থাকবে, ন্যাটোর একজন সদস্য হিসেবে।

তিনি আরও বলেন, তুরস্ক যেসব বিষয় নিয়ে আপত্তি করেছে এ দুটি তার মধ্যে অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ।

এদিকে পিকেকে এবং ওয়াইপিজের মতো সংগঠনগুলোর ওপর অভিযান চালানোর কারণে ২০১৯ সালে তুরস্কের কাছে অস্ত্র বিক্রির ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞা দেয় সুইডেন।
সূত্র: আল জাজিরা