চীন-ভারতের কাছে জ্বালানি বিক্রি, ৩ মাসে রাশিয়ার আয় ২৪ বিলিয়ন ডলার

Slider right সারাবিশ্ব

ইউক্রেনে সেনা অভিযানের পর গেল তিন মাসে চীন ও ভারতের কাছে জ্বালানি বিক্রি করে রাশিয়া আয় করেছে ২৪ বিলিয়ন ডলার। ব্লুমবার্গের প্রতিবেদনে এমনটাই দাবি করা হয়েছে। এরমধ্যে মে মাস পর্যন্ত রাশিয়ার তেল, কয়লা ও গ্যাস কিনতে চীন খরচ করেছে ১৮.৯ বিলিয়ন ডলার। যা আগের বছরের তুলনায় দ্বিগুণ বেশি। আর একই সময়ে ভারতের রাশিয়ার জ্বালানি আমদানিতে খরচ ৫.১ বিলিয়ন ডলার।

সবমিলিয়ে ব্লুমবার্গের দাবি মতে, চীন ও ভারতের কাছে জ্বালানি বিক্রি করে গত বছরের এই সময়ের তুলনায় এবার ১৩ বিলিয়ন ডলার বেশি আয় করেছে রাশিয়া। পশ্চিমা নিষেধাজ্ঞা ও রুশ জ্বালানি বর্জনের ডাক তাই খুব একটা কাজে আসছে না, উল্টো লাভবান হচ্ছে রাশিয়া। কারণ এশিয়ার দেশগুলো বিশেষ করে ভারত ও চীন ডিসকাউন্ট বা ছাড়ে রাশিয়ার জ্বালানি পণ্য কেনায় ভ্লাদিমির পুতিনের দেশকে খুব একটা বেগ পেতে হচ্ছে না বলেই মনে করে ব্লুমবার্গ।

ইইউ ও যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞা পরবর্তী সময়ে চীন ও ভারতই রাশিয়ার কাছ থেকে সাগর পথ হয়ে বিদেশে যাওয়া জ্বালানির ৫০ শতাংশ ক্রয় করেছে। চলতি বছরে রাশিয়া জ্বালানি বিক্রি করে ২৮৫ বিলিয়ন ডলার আয় করবে বলেই অনুমান করছে ব্লুমবার্গ।

বিপরীতে জ্বালানি সঙ্কটে ভুগছে পশ্চিমা দেশগুলো। বিভিন্ন দেশে দেখা দিয়েছে তীব্র মুদ্রাস্ফীতি। আর রাশিয়া জ্বালানি রপ্তানি করে পকেট গরম করার বিষয়টা বেশ উপভোগ করছে। তবে রাশিয়ার এই সুদিন খুব বেশি দিন থাকবে না বলেও দাবি করছে ব্লুমবার্গ। এশিয়ায়ও নাকি দেশটির জ্বালানির চাহিদা ক্রমাগত কমছে। তবে নাটকে শেষ অঙ্কে কী ঘটছে, তা দেখতে অপেক্ষার কোন বিকল্প নেই।
সূত্র: বিজনেস ইনসাইডার