শ্রীলংকার সংকট: বাংলাদেশসহ এশিয়ার দেশগুলোর জন্য সতর্কবার্তা

Slider সারাবিশ্ব

দক্ষিণ এশিয়ার দেশ শ্রীলংকা একটি গভীর এবং অভূতপূর্ব অর্থনৈতিক সংকটের মধ্যে রয়েছে; যা কারণে দেশটির জনগণের মধ্যে বিক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে এবং দেশটির প্রেসিডেন্টের দেশ ছেড়ে পালিয়ে যাওয়ার ঘটনাও ঘটেছে। তবে শুধু শ্রীলংকা নয়, বাংলাদেশসহ অন্যান্য দেশগুলোও একই ধরণের সমস্যার ঝুঁকিতে রয়েছে বলে সতর্ক করেছেন আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের (আইএমএফ) প্রধান ক্রিস্টালিনা জর্জিয়েভা। সোমবার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে বিবিসি।

বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, লাওস, পাকিস্তান, মালদ্বীপ ও বাংলাদেশও শ্রীলংকার মতো পরিস্থিতির ঝুঁকিতে রয়েছে।

শনিবার ক্রিস্টালিনা জর্জিয়েভা বলেন, উচ্চ ঋণের মাত্রা এবং সীমিত নীতিমালা যেসব দেশের, তারা অতিরিক্ত চাপের সম্মুখীন হবে। তাদের জন্য শ্রীলংকার পরিস্থিতি একটি সতর্কবার্তা।

এদিকে, শ্রীলংকা, লেবানন, রাশিয়া, সুরিনাম এবং জাম্বিয়া ইতোমধ্যেই ঋণ খেলাপির তালিকায় রয়েছে। বেলারুশও ঋণ খেলাপি হওয়ার দ্বারপ্রান্তে রয়েছে এবং কমপক্ষে আরও ডজনখানেক দেশ ক্রমবর্ধমান ঋণের খরচ, মুদ্রাস্ফীতিসহ বিভিন্ন কারণে সবদিক থেকেই অর্থনৈতিক পতনের আশঙ্কায় রয়েছে।

অর্থনৈতিক সংকটের মুখে থাকা দেশের তালিকা চমকপ্রদ। এই তালিকার শীর্ষে রয়েছে আর্জেন্টিনা। এর পরই রয়েছে মিশর ও ইকুয়েডর।