ইউক্রেনের আরও ভূখণ্ড দখলের পরিকল্পনা করছে রাশিয়া: যুক্তরাষ্ট্র

Slider right

ক্রিমিয়া দখলের মতো ইউক্রেনের আরও ভূখণ্ড দখলের জন্য রাশিয়া পরিকল্পনা করছে বলে অভিযোগ করেছে যুক্তরাষ্ট্র। দেশটির দাবি- ক্রিমিয়ার মতো একই ‘প্লেবুক’ ব্যবহার করে ইউক্রেনের আরও ভূখণ্ড দখলের পরিকল্পনা করছে মস্কো।

মঙ্গলবার মার্কিন গোয়েন্দাদের উদ্ধৃতি দিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় নিরাপত্তা পরিষদের মুখপাত্র জন কিরবি এক কথা বলেন। খবর বিবিসির।

তিনি বলেন, রাশিয়া ইতোমধ্যে ইউক্রেনীয় ভূখণ্ড দখলের ভিত্তিও তৈরি করছে।

জন কিরবি বলেন, আগামী সেপ্টেম্বরের মধ্যেই রাশিয়ায় যোগদানের বিষয়ে ‘ভুয়া’ গণভোটের আয়োজন করতে পারে ইউক্রেনের রুশ অধিকৃত অঞ্চলগুলো। ২০১৪ সালে একই রকম একটি গণভোটের মাধ্যমে ক্রিমিয়াকে রাশিয়ার মূল ভূখণ্ডের সঙ্গে যুক্ত করেছিল মস্কো। সারা বিশ্বেই ওই গণভোটকে ব্যাপকভাবে অবৈধ হিসাবে বিবেচনা করা হয়েছিল।

তিনি আরও বলেন, আমরা আমেরিকান জনগণের কাছে এটি স্পষ্ট করতে চাই। এটির (ভুয়া গণভোটের) মাধমে কাউকে বোকা বানানো যায় না। ২০১৪ সালের ওই একই প্লেবুক আবারও ব্যবহারের চেষ্টা করছেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন।

জন কিরবি অভিযোগ করে বলেন, ইউক্রেনের দখলকৃত অঞ্চলগুলো পরিচালনা করার জন্য অবৈধ রুশপন্থি কর্মকর্তাদের নিযুক্ত করা হচ্ছে। মূলত রাশিয়ার অংশ হওয়ার জন্য গণভোট আয়োজনের লক্ষ্যেই এসব রুশপন্থি কর্মকর্তাদের নিযুক্ত করা হচ্ছে বলে দাবি করেন তিনি।

কিরবি বলেন, সার্বভৌম ইউক্রেনীয় ভূখণ্ড দখলের জন্য রাশিয়া এই ভোটের ফল ব্যবহার করবে। নিজ ভূখণ্ডের সঙ্গে সংযুক্তিকরণে ইউক্রেনের যেসব অঞ্চলকে রাশিয়া টার্গেট করেছে, তার মধ্যে খেরসন, জাপোরিঝিয়া, দোনেৎস্ক এবং লুহানস্ক রয়েছে।