এশিয়া কাপে উইকেট কিপার হিসেবে কাকে চান সাকিব, মুশিফিক নাকি বিজয়

Slider right খেলা

ইনজুরিতে জর্জরিত স্কোয়াড নিয়েই এশিয়া কাপে সফর করেছে বাংলাদেশ দল। দলে নেই একাধিক তারকা ক্রিকেটার। আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে ২০২০ সাল থেকেই উইকেটকিপিং করছেন না মুশফিকুর রহিম। টেস্টের মতো এই সংস্করণেও তার পরিচয় কেবল ব্যাটসম্যান হিসেবে। তিনি সরে যাওয়ায় তার সেই দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল লিটন দাসকে। কিন্তু ইনজুরি ও অফফর্মের কারণে তিনিও সরে আসেন দায়িত্ব থেকে।

এর পর থেকেই বাংলাদেশ দলের নিয়মিত উইকেট কিপারের দায়িত্ব পালন করে আসছেন নুরুল হাসান সোহান। তবে সফরের একদিন আগে ইনজুরিতে পরে দল থেকে ছিটকে গিয়েছেন এই উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান। এখন এশিয়া কাপে কে হবেন উইকেটরক্ষক এ নিয়ে দেখা দিয়েছে নানা শংকা। তবে শংকার কোনো কারণ দেখছেন না খোদ ক্যাপ্টেন সাকিব আল হাসান। কারণ উইকেটরক্ষক হিসেবে মুশফিকের উপরই তার আস্থা। অর্থাৎ এবার এশিয়া কাপে পুরনো ভূমিকায় ফিরতে যাচ্ছেন মুশফিক। অধিনায়ক সাকিব আল হাসানেরও চাওয়া মুশফিকই থাকুক এই দায়িত্বে।

সাকিবের মনে করেন, মুশফিক কিপিং করলে অধিনায়ক হিসেবে তার ‘লাইফটা’ অনেক সহজ হয়ে যাবে। এটার সবচেয়ে বড় কারণ হচ্ছে টি-টোয়েন্টিতে খেলার সময় খুব কম। আসলে ফিল্ডিংয়ের অ্যাঙ্গেলগুলো মুশফিক খুব সহজে বদলাতে পারে। যেটা সাকিবের কাছে আলাদা করে শোনার প্রয়োজন হয় না। এতে সাকিবের দায়িত্ব অনেকটা সহজ হয়ে যায়। আর এই সময়ে সাকিব অন্য একটা-দুটো বিষয় নিয়ে চিন্তা করতে পারবে।

কাজেই ফিল্ডিংয়ের পজিশনের চিন্তা করা থেকে, কিংবা অ্যাঙ্গেলগুলো নিয়ে কে কোথায় দাঁড়াচ্ছে ঠিক আছে কি না, এসব মুশফিকই ভালো দেখতে পারবে। কারণ সাকিবের পক্ষে এগারোটা খেলোয়াড় সবসময় দেখা সম্ভব না। একমাত্র কিপারই আছে যে এটা ভালো করে দেখতে পারে। আর মুশফিক এর মতো অভিজ্ঞ খেলোয়াড় থাকলে এগুলো আরও সহজ হয়ে যাবে।