এবার যুক্তরাষ্ট্রকে শর্ত বেঁধে দিল চীন

Slider right সারাবিশ্ব

মার্কিন হাউস স্পিকার ন্যান্সি পেলোসির তাইওয়ান সফরকে কেন্দ্র করে চীনের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের সম্পর্ক তলানিতে ঠেকেছে। ন্যান্সি পেলোসির সফরকে কেন্দ্র করে চীন তাইওয়ানের আশেপাশে স্মরণকালের সবচেয়ে বড় সামরিক মহড়ার পাশাপাশি যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে জলবায়ু পরিবর্তন সংক্রান্ত আলোচনাও স্থগিতের ঘোষণা দেয়। তবে এবার সেই আলোচনা ফের শুরুর জন্য ওয়াশিংটনকে শর্ত বেঁধে দিয়েছে বেইজিং। বার্তা সংস্থা রয়টার্স এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।

ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গতমাসের শুরুতে ন্যান্সি পেলোসির তাইওয়ান সফরের প্রতিক্রিয়ায় চীন-যুক্তরাষ্ট্রের সেনা কর্মকর্তা পর্যায়ের আলোচনা, জলবায়ু পরিবর্তন সংক্রান্ত আলোচনা, সীমান্তে অপরাধ ঠেকাতে যৌথ সহযোগিতামূলক অভিযান, সমুদ্র নিরাপত্তা ব্যবস্থা, অভিবাসন এবং মাদক বিরোধী বিষয়গুলো নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে আর একসঙ্গে কাজ করবে না বলে জানিয়েছিল চীন।

জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ক মার্কিন বিশেষ দূত জন কেরি মঙ্গলবার ফিনান্সিয়াল টাইমসকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংকে আলোচনা পুনরায় শুরু করার আহ্বান জানিয়েছেন। চীন বুধবার কেরির ওই মন্তব্যের প্রতিক্রিয়া জানিয়ে বলেছে, যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে জলবায়ু আলোচনা পুনরায় শুরু করা পেলোসির তাইওয়ান সফরের ‘নেতিবাচক প্রভাব’ মোকাবেলায় ওয়াশিংটনের পদক্ষেপের উপর নির্ভর করছে।

এ ব্যাপারে বার্তা সংস্থা রয়টার্সের কাছে পাঠানো এক লিখিত বিবৃতিতে চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, মার্কিন পক্ষের উচিত তাইওয়ানে পেলোসির নেতিবাচক প্রভাব দূর করা। এটা চীন-যুক্তরাষ্ট্রের জলবায়ু পরিবর্তন সহযোগিতার একটি অপরিহার্য শর্ত। চীন জলবায়ু পরিবর্তন সংক্রান্ত আন্তর্জাতিক ফোরামে সক্রিয়ভাবে অংশগ্রহণ অব্যাহত রাখবে বলেও বিবৃতিতে বলা হয়েছে।