এক সপ্তাহে কয়টি এলাকা দখলমুক্ত করল ইউক্রেন?

Slider right সারাবিশ্ব

গত সপ্তাহে দক্ষিণ ও পূর্বাঞ্চলে এক হাজার বর্গ কিলোমিটারের বেশি এলাকা দখলমুক্ত করার দাবি করেছে ইউক্রেন। দেশটির প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি বলেছেন, ইউক্রেনীয় সেনারা খারকিভ অঞ্চলের ৩০টির বেশি এলাকা পুনর্নিয়ন্ত্রণ নিয়েছেন।

কিয়েভ থেকে এক ভাষণে জেলেনস্কি বলেন, তার বাহিনী ‘ধীরে ধীরে নতুন বসতির নিয়ন্ত্রণ নিচ্ছে’ এবং ‘ইউক্রেনের পতাকা ও আমাদের জনগণের সুরক্ষা ফিরিয়ে আনেছে। খারকিভ অঞ্চলে রুশ সেনাদের নেতৃত্বদানকারী এক শীর্ষ কর্মকর্তাও বলেছেন, ইউক্রেনীয় বাহিনী ‘উল্লেখজনক জয়’ পেয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক গবেষণা প্রতিষ্ঠান ইনস্টিটিউট ফর দ্য স্টাডি অব ওয়ারের বিশ্লেষণ অনুযায়ী কিয়েভের সেনারা কুপিয়ানস্ক থেকে মাত্র ১৫ কিলোমিটার দূরে অবস্থান করছেন। কুপিয়ানস্ক হলো জরুরি রেলওয়ে জংশন। যুদ্ধক্ষেত্রে সেনা পাঠাতে এ জংশন ব্যবহার করে মস্কো।

এদিকে ইউক্রেনের শহরগুলো পুনরুদ্ধার করার এ ঘটনা রাশিয়াকে বিস্মিত করেছে বলে জানিয়েছেন যুক্তরাজ্যের প্রতিরক্ষা কর্মকর্তারা। দৈনিক তথ্যবিবরণীতে তারা জানিয়েছে, কিয়েভের বাহিনী পূর্বে রাশিয়া নিয়ন্ত্রিত অঞ্চলে ৫০ কিলোমিটার (৩১ মাইল) অগ্রসর হয়েছে। তাদের দাবি, এই হামলার ফলে মস্কোর হাজার হাজার সৈন্য ইজিয়ামের শহরের কাছে ‘ক্রমবর্ধমানভাবে বিচ্ছিন্ন’ হয়ে পড়েছে। শুক্রবার রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, খারকিভ অঞ্চলকে শক্তিশালী করার জন্য সেনা সংখ্যা আরও বৃদ্ধি করা হচ্ছে।