১১ জুলাই হরতাল!

Slider Slider right জাতীয় সারাবাংলা সারাবিশ্ব

গাড়ী ভাঙচুর-পুলিশের সঙ্গে মারামারি নয়, জনজীবনে ক্ষতি করে নয়, এক ব্যক্তির শাসন অবসান প্রশ্নে কোন আপোষ নয়। বরং সকলের স্বতঃস্ফূর্ত সমর্থনে আগামী ১১ জুলাই দেশব্যাপী পূর্ণদিবস হরতালের ডাক দিয়েছে ‘দেশপ্রেমিক মঞ্চ’ নামের একটি রাজনৈতিক সংগঠন। যার আহ্বায়ক নদী গবেষণা ইনস্টিটিউটের সাবেক মহাপরিচালক প্রকৌশলী ম ইনামুল হক। এর আগে ২৫ ডিসেম্বর হরতাল ডেকে প্রচারণার সময় আওয়ামী লীগের হামলার শিকার হন এই প্রকৌশলী। সোমবার (১৯ জুন) গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তি এ তথ্য জানিয়েছে সংগঠনটি।

১৭ দফা দাবি আদায়ের লক্ষ্যে সংগঠনটি বলছে, আওয়ামী লীগ ২০০৯ সালে ক্ষমতায় এসেই গণপ্রতিনিধিত্ব আইন ১৯৭২ সংশোধন করে স্বতন্ত্র প্রার্থীদের ১% ভোটারের প্রকাশ্য অগ্রীম স্বাক্ষরের ১২(৩)এ ধারা এবং দল নিবন্ধনের নিপীড়নমূলক ৯০বি(১)এ৩ ধারা অন্তর্ভুক্ত করে। এর ফলে রাজনীতিতে ভিন্নমত পোষণের, নতুন নেতৃত্ব সৃষ্টির এবং নতুন দল গড়ে তোলার পথ রুদ্ধ হয়ে যায়। এভাবে শেখ হাসিনার সরকার যে বল্লালী কুলীন প্রথা চালু করে তার বিরুদ্ধে আমরা হাইকোর্টে রিট আবেদন (১৫৮০৩/১২) করেছি, যা’ আওয়ামী দখলে স্তব্ধ হয়ে আছে।

দেশপ্রেমিক মঞ্চের আরও জানায়, আওয়ামী লীগ অবৈধভাবে ক্ষমতায় থেকে ৫ জানুয়ারি ২০১৪ বিনা ভোটের নির্বাচন করে। তারপর যারপরনাই নিপীড়ন করে বিএনপিকে কোণঠাসা করে। ৩০ ডিসেম্বর ২০১৮ নির্বাচনের আগে কিছু প্রতারক, লোভী, উচ্ছিষ্টভোগীদের কাজে লাগিয়ে বিএনপিকে কাছে টানে ও আগের রাতেই ভোট ডাকাতি করে থাকে। আমরা জনগণের ভোটাধিকার ফিরে পাওয়া, ডিজিটাল আইন বাতিল ও ‘জাতীয় সরকার’ এর অধীনে ভোটকেন্দ্র দখলমুক্ত, কালো আইন, কালো টাকামুক্ত নির্বাচন করার লক্ষ্যে ১৭ দফা রোড ম্যাপ দিয়েছি।

সংগঠনটির নেতারা বলেন, বাংলাদেশের রাজনীতি কারুর স্বার্থে দেশের ভেতরে বা বাইরে থেকে ‘রিমোট কন্ট্রোল’এ আর নয়। দেশের রাজনীতি হতে হবে জনগণের স্বার্থে, জনগণের ইচ্ছায়। বাংলাদেশ হবে ‘জনগণতান্ত্রিক বাংলাদেশ’। এই দেশে রাজা নেই, তাই কোন প্রজাও নেই। মহান মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে অর্জিত এই বাংলাদেশ সকলের, সর্বজনের। কিন্তু এই দেশটা এখন এক ব্যক্তির কবলে পড়েছে।

দেশপ্রেমিক মঞ্চের নেতারা আরও বলেন, আমরা স্বাধীনতার বিপক্ষের শক্তি নই পরাজিতও নই, আমরা দেশপ্রেমিক শক্তি। বাংলাদেশকে এক ব্যক্তির শাসন থেকে মুক্ত করে জবাবদিহিতার সরকার প্রতিষ্ঠা করতে আমরা আওয়ামী-বিএনপিসহ সকল দলের গণতন্ত্রকামীদের প্রতি শনিবার বিকেল ৪-৫টা শাহবাগে আহ্বান করছি। পরদিন নিম্নবর্ণিত স্থান ও সময়ে সকল দলের সমর্থকদের উপস্থিতিতে ‘অবৈধভাবে চেপে থাকা সরকারকে বিদায় করতে ৯ দফা পূর্বশর্ত’ ও প্রস্তাবিত ‘জাতীয় সরকার’ এর ১৭ দফা রোডম্যাপ বিষয়ে মতবিনিময় করা হবে।

আগামী ২৫ জুন রবিবার বিকাল ৪টায় পরিবাগের সংস্কৃতি বিকাশ কেন্দ্রে এই মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হবে।