দেশে ২৪ ঘন্টায় করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা আরও কমেছে

Slider জাতীয়

করোনাভাইরাসে গত ২৪ ঘণ্টায় ২০ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে দেশে করোনায় মোট মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২৮ হাজার ৯০৭ জনে। একই সময়ে নতুন করে করোনা শনাক্ত হয়েছে ৩ হাজার ৫৩৯ জনের। এর আগে গতকাল (বুধবার) ১৫ জনের মৃত্যু এবং ৩ হাজার ৯২৯ জন আক্রান্ত হয়েছিলেন। এ পর্যন্ত মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৯ লাখ ২৬ হাজার ৫৭০ জনে। শনাক্তের হার ১০ দশমিক ২৪ শতাংশ।

বৃহস্পতিবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে পাঠানো করোনাবিষয়ক নিয়মিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বিশ্বব্যাপী মহামারি করোনাভাইরাসে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ১০ হাজার ৯০৫ জন মারা গেছে। একই সময় রোগী শনাক্ত হয়েছে ২০ লাখ ৮৬ হাজার ২৯৭ জন। এর আগে গতকাল (বুধবার) ৯ হাজার ৯৮১ জনের মৃত্যু এবং ১৮ লাখ ৯৭ হাজার ১৭২ জন রোগী শনাক্ত হয়েছিল। বৃহস্পতিবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) সকালে করোনার হিসাব রাখা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটারস থেকে এসব তথ্য পাওয়া গেছে। ওয়ার্ল্ডোমিটারসের সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, বিশ্বে এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৪১ কোটি ৭৯ লাখ ৩৩ হাজার ৯৬৭ জন। এরমধ্যে মৃত্যু হয়েছে ৫৮ লাখ ৬৭ হাজার ৬৪৮ জনের।

এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় জার্মানিতে আক্রান্ত হয়েছেন ২ লাখ ৩৪ হাজার ৮৮৬ জন এবং মারা গেছেন ২৭৯ জন। যুক্তরাষ্ট্রে আক্রান্ত ১ লাখ ১৩ হাজার ৬৪৬ জন এবং মৃত্যু ২ হাজার ৪১৯ জন। রাশিয়ায় মৃত্যু ৭৪৮ জন এবং আক্রান্ত ১ লাখ ৭৯ হাজার ২৮৪ জন। স্পেনে আক্রান্ত ৩৭ হাজার ১০৮ জন এবং মৃত্যু ৪৪৪ জন। ব্রাজিলে মৃত্যু ১ হাজার ৪৬ জন এবং আক্রান্ত ১ লাখ ৪৭ হাজার ২৫২ জন। ভারতে মৃত্যু ৫৩৮ জন এবং আক্রান্ত ২৮ হাজার ৯৮৪ জন। যুক্তরাজ্যে আক্রান্ত ৫৪ হাজার ২১৮ জন এবং মৃত্যু ১৯৯ জন। ইউক্রেনে আক্রান্ত ৩১ হাজার ৫১৩ জন এবং মারা গেছেন ৩১০ জন। তুরস্কে আক্রান্ত ৯৪ হাজার ১৭৬ জন এবং মৃত্যু ২৭১ জন। ইতালিতে আক্রান্ত ৫৯ হাজার ৭৪৯ জন এবং মৃত্যু ২৭৮ জন। ফ্রান্সে আক্রান্ত ৯৮ হাজার ৭৩৫ জন এবং মৃত্যু ২৭৬ জন।

উল্লেখ্য, ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীনের উহানে প্রথম করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়। এরপর ২০২০ সালের ১১ মার্চ বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) করোনাকে ‘বৈশ্বিক মহামারি’ হিসেবে ঘোষণা করে। এর আগে একই বছরের ২০ জানুয়ারি বিশ্বজুড়ে জরুরি পরিস্থিতি ঘোষণা করে সংস্থাটি।